Pages

Categories

Search

আজ- শনিবার ১৭ নভেম্বর ২০১৮

গোপালগঞ্জে যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালিত

মার্চ ২৬, ২০১৮
গোপালগঞ্জ, জাতীয়, দিবস
No Comment

এম শিমুল খান, গোপালগঞ্জ : মহান মুক্তিযুদ্ধে আত্মদানকারী শহীদদের এক সাগর রক্তের বিনিময়ে পাওয়া বাংলাদেশের ৪৮তম মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালিত হয়েছে। একাত্তরে স্বাধীনতা যুদ্ধে শহীদদের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন এবং জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ার শপথ গ্রহণের মধ্য দিয়ে সদ্য স্বল্পোন্নত দেশের গ্রæপ (এলডিসি) থেকে উন্নয়নশীল দেশে রূপান্তরের যোগ্যতা অর্জনকারী গর্বিত গোপালগঞ্জবাসী নানা কর্মসূচির মাধ্যমে এবারের স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপন করেছে।
গোপালগঞ্জে যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান স্বাধীনতা পালিত হয়েছে। মহান স্বাধীনতা দিবস উদ্যাপন উপলক্ষে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের সমাধি সৌধে শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ। সোমবার সকাল ১১টায় নেতৃবৃন্দ স্বাধীনতার মহান স্থপতির সমাধি বেদীতে পুস্পস্তবক অর্পনের মধ্য দিয়ে তার প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন, ফাতেহা পাঠ, বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত করেন।
এ সময় কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য লেঃ কর্ণেল (অবঃ) মুহাম্মদ ফারুক খান এমপি, কেন্দ্রীয় আ’লীগের কার্য নির্বাহী কমিটির সদস্য আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহ, যুগ্ম সাধারন সম্পাদক আব্দুর রহমান এমপি, কেন্দ্রীয় আ’লীগ নেতা আ ফ ম বাহাউদ্দীন নাছিম, এসএম কামাল, এ্যাড. আমিরুল আলম মিলন, সৈয়দ নজরুল ইসলাম, সাইফুল ইসলাম, গোপালগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাহাবুব আলী খান, টুঙ্গিপাড়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আ: হালিম শেখ, টুঙ্গিপাড়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ আবুল বশার খায়ের, টুঙ্গিপাড়া উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান সুলায়মান বিশ্বাসসহ আওয়ামীলীগ ও সহযোগি সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
এর আগে সকাল ৭টায় পুস্পমাল্য অর্পনের মধ্য দিয়ে দিবসটির শুভ সুচনা করা হয়। এ সময় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের সমাধি সৌধে শ্রদ্ধা নিবেদন করে পুস্পমাল্য অর্পন করে গোপালগঞ্জ জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, গোপালগঞ্জ জেলা প্রশাসন, গোপালগঞ্জ জেলা পুলিশ প্রশাসন, জেলা পরিষদ, গোপালগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, শ্রমিকলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, প্রজন্মলীগ, বঙ্গবন্ধু পরিষদ, গোপালগঞ্জ জেলা প্রেসক্লাব, প্রেসক্লাব গোপালগঞ্জ, মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ড কাউন্সিল, গোপালগঞ্জ জেলা বাস-মিনিবাস মালিক সমিতি, জেলা দুর্নীতি দমন কমিশন, জেলা আইনজীবি সমিতি, জেলা স্বাস্থ্য অধিদপ্তর, গোপালগঞ্জ পৌরসভা, উপজেলা প্রশাসন, যুগশিখা স্কুল, যুগশিখা সংঘ, মুক্তিযোদ্ধা কল্যান ও পুনর্বাসন সোসাইটি, শক্তি ফাউন্ডেশন, গোপালগঞ্জ কেমিষ্ট এন্ড ড্রাগিষ্ট সমিতি, ফার্মাসিষ্ট কল্যান সমিতি। এছাড়া গোপালগঞ্জ জেলা সদর, টুঙ্গিপাড়া, কোটালিপাড়া, কাশিয়ানী ও মুকসুদপুর উপজেলায় বিভিন্ন কুজকাওয়াজ ও সাংকৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে যথাযোগ্য মর্যাদায় দিবসটি পালিত হয়েছে। দিবসটির তাৎপর্য তুলে ধরে আলোচনা সভা, দোয়া ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করা হয়। এদিন জেলা কারাগার, এতিমখানা, শিশু সদন ও হাসপাতালে উন্নতমানের খাবার পরিবেশন করা হয়।
এ ছাড়াও সকাল ৮ টায় শেখ কামাল স্টেডিয়ামে জেলার সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্র-ছাত্রী, জেলা পুলিশ প্রশাসন, জেলা আনসার ও ভিডিপি, স্কাউট, রেড ক্রিসেন্ট, বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের অংশ গ্রহনে কুচকাওয়াজ ও ডিসপ্লে অনুষ্ঠিত হয়। কুচকাওয়াজে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে সালাম গ্রহন করেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মোখলেসুর রহমান সরকার। এ সময় মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন পুলিশ সুপার সাইদুর রহমান খান। কুচকাওয়াজ ও ডিসপ্লে শেষে অংশ গ্রহকারীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরন করা হয়। সন্ধায় শেখ ফজলুল হক মনি অডিটরিয়ামে স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে সংগীত ও নৃত্য পরিবেশন করে গোপালগঞ্জ উদিচী শিল্প গোষ্ঠি, জেলা শিল্প কলা একাডেমীর শিল্পি বৃন্দ।
টুঙ্গীপাড়া : গোপালগঞ্জের টুঙ্গীপাড়ায় মহান স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের মাজারে কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। সেখানে ফাতেহা পাঠ ও বিশেষ মোনাজাতে অংশ নেন নেতাকর্মীরা। এর আগে গোপালগঞ্জ শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. খোন্দকার নাসির উদ্দিনের নেতৃত্বে শিক্ষক-শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা-কর্মচারী, শেখ সায়েরা খাতুন মেডিকেল কলেজ, জেলা পরিষদ, জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, গোপালগঞ্জ পৌরসভা, গণপূর্ত বিভাগ, সরকারি বঙ্গবন্ধু কলেজ, জেলা আওয়ামী লীগ, স্বেচ্ছা সেবকলীগ, ছাত্রলীগ, টুঙ্গীপাড়া উপজেলা আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠন, টুঙ্গীপাড়া পৌরসভাসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, সংস্কৃতিক সংগঠন ও স্কুল-কলেজের পক্ষে বঙ্গবন্ধুর মাজারে পুস্পমাল্য অর্পণ করে শ্রদ্ধা নিবেদন, ফাতেহা পাঠ ও বিশেষ মোনাজাত করা হয়।
মুকসুদপুর : যথাযোগ্য মর্যাদায় গোপালগঞ্জের মুকসুদপুরে মহান স্বাধীনতা দিবস পালিত হয়েছে। উপজেলা পরিষদ, উপজেলা প্রশাসন, উপজেলা আওয়ামীলীগসহ অংগ সংগঠন, উপজেলা ভূমি অফিস, মুকসুদপুর থানা, মুকসুদপুর পৌরসভা, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড, মুকসুদপুর সরকারী কলেজ, মুকসুদপুর এস জে স্কুল ও স্থানীয় সাংবাদিকসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক, পেশাজীবি, স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন উপজেলা কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পমাল্য অর্পণ করে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। এরপর শহীদদের আত্মার মাগফিরাত কামনায় বিশেষ দোয়া করা হয়। এছাড়াও বিজয় দিবস উপলক্ষ্যে মুকসুদপুর উপজেলা পরিষদের পক্ষ থেকে কে জি স্কুল মাঠে পতাকা উত্তোলন, কুচকাওয়াজ, আলোচনা সভা, শরীর চর্চা প্রদর্শনী, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে বিভিন্ন স্কুল-কলেজের ছাত্র-ছাত্রী, সামাজিক-সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠানের শিশু-কিশোররা অংশ নেয়।
কোটালীপাড়া : গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া উপজেলায় যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান স্বাধীনতা দিবস পালিত হয়েছে। উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে দিবসের প্রথম প্রহরে উপজেলা কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার চত্ত¡রে পুস্পমাল্য অর্পনের মধ্যে দিয়ে দিনের কর্মসূচি শুরু হয়। এরপর মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতি ফলকে উপজেলা পরিষদ, প্রশাসন, রাজনৈতিক, কোটালীপাড়া রিপোর্টাস ক্লাব, সামাজিক সংগঠন ও প্রেসকাবের পক্ষ থেকে ফুল দিয়ে বিনম্র শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্র-ছাত্রীরা স্থানীয় শেখ লুৎফর রহমান আদর্শ সরকারি কলেজ মাঠে কুচকাওয়াজ ও শরীর চর্চা প্রদর্শন করে।
কাশিয়ানী : যথাযোগ্য মর্যাদায় কাশিয়ানীতে মহান বিজয় দিবস পালিত হয়েছে। পুস্পমাল্য অর্পনের মধ্যে দিয়ে দিনের কার্যক্রম শুরু হয়। এরপর উপজেলা প্রশাসন, উপজেলা পরিষদ, উপজেলা আ’লীগ, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড, উপজেলা ছাত্রলীগ, কাশিয়ানী উপজেলা প্রেসক্লাব, শিল্পকলা একাডেমী, উদীচী শিল্প গোষ্ঠীসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক, পেশাজীবি, স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ও বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে উপজেলা কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পমাল্য অর্পণ করে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধার্ঘ নিবেদন করা হয়। দুপুরে শহীদদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে মসজিদে মসজিদে বিশেষ দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়। এছাড়া স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে দিনব্যাপী বিভিন্ন স্থানে র‌্যালী, কুচকাওয়াজ, আলোচনা সভা, শরীরচর্চা প্রদর্শনী, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়। এতে বিভিন্ন স্কুল-কলেজের ছাত্র-ছাত্রী, সামাজিক-সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠানের শিশু-কিশোররা অংশ নেয়। এছাড়াও বিজয় দিবস উপলক্ষে বিভিন্ন মসজিদ, মন্দির, গীর্জাসহ ধর্মীয় উপাসনালয়ে শহীদের স্মরণে দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়।