Pages

Categories

Search

আজ- বৃহস্পতিবার ১৫ নভেম্বর ২০১৮

গোপালগঞ্জে ধানের দাম না বাড়ায় কৃষকের মাথায় হাত

অগাষ্ট ১২, ২০১৫
কৃষি, গোপালগঞ্জ
No Comment

মোহাম্মদ মাহমুদ কবির আলী : গোপালগঞ্জ জেলায় কৃষকদের দূর্দশা শুরু হয়েছে চলতি সময়ে। জেলার ৫ উপজেলার কোথাও ধানের দাম বৃদ্ধি না পাওয়ায়  ইরি-বোরো চাষীরা এখন বিপাকে পড়েছে। বর্তমানে ধানের দাম রয়েছে প্রতি মন ৪৫০/৫০০ টাকা মাত্র। সাম্প্রতিক বৃষ্টি বেশীরভাগ কৃষকদের জন্য দেখা দিয়েছে মড়ার উপর খাড়ার ঘায়ের মতো।  সংরক্ষনের সুব্যবস্থা না থাকায় বৃষ্টির পানিতে ভিজে ধান যাচ্ছে পচে। পচা ধানের দামও মিলছে না বাজারে।  এমন অবস্থায় বহু কৃষককে দেখা গেছে দু:খ দূর্দশায় নিপতিত,হতাশ এবং কর্পদক শূন্য অবস্থায়। গোপালগঞ্জ জেলার টুঙ্গিপাড়া গ্রামের আনিসুর রহমান জানিয়েছেন তিনি মাত্র  ৫০০ টাকা করে প্রতি মন  ধান বিক্রি করতে সক্ষম হয়েছেন চলতি সপ্তাহে। তিনি বলেন চলতি বাজার দরে ধান বিক্রি করায় তার খরচের টাকাও ওঠে নাই।
গোপালগঞ্জ জেলা কৃষি সম্পসারন অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক সমীর কুমার গোশ্বামী বুধবার জানিয়েছেন, জেলায় চলতি বছর লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে বেশী জমিতে ধান চাষ হয়েছে এবং ফলনও হয়েছে লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে বেশী। মৌসুমের শেষ দিকে  শীলাবৃষ্টিতে উলপুর এবং পাশ্ববতী ব্যাপক এলাকায় ধানের ক্ষতি না হলে উৎপাদন আরো বাড়তো।
এ বছর সদর উপজেলা,কোটালীপাড়া,মুকসুদপুর,কাশিয়ানী এবং টুঙ্গিপাড়ায় ইরি বোরো চাষে লক্ষ্যমাত্রা ছিলো ৭৪,৫২৫ হেক্টর জমি এবং ৩,২৩,৫৪১ মেট্রিক টন ধান। কিন্তু , চাষ হয়েছে ৭৫,৬৯৯ হেক্টর  জমি যা থেকে প্রায় ৩,৮৬,৪২৪ মেট্রিক টন ধান উৎপাদিত হয়েছে। জেলায় হাইব্রীড,উফশী এবং স্থানীয় জাতের ধান চাষ হয়। তবে স্থানীয় জাতের ধান চাষ হয় মাত্র ১৩০ হেক্টর জমিতে।