Pages

Categories

Search

আজ- বুধবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮

গাজীপুরে শ্বামীর শয়নকক্ষ থেকে নববধুর লাশ উদ্ধার

জুলাই ২৯, ২০১৫
অপমৃত্যু, আইন- আদালত, নওগাঁ, হত্যা
No Comment

গাজীপুর দর্পণ রিপোর্ট: গাজীপুরে শ্বামীর শয়ন কক্ষ থেকে এক নববধুর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বুধবার বিকেলে গাজীপুর সিটি করপোরেশনের পূর্ব-চান্দনা এলাকার একটি ভাড়া বাড়ি থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়েছে।

নিহত নববধুর নুসরাত জাহান রুমি (১৮)। সে নওগাঁ সদর উপজেলার সুলতানপুর মনহরপাড়া এলাকার মো. রফিকুল ইসলামের মেয়ে এবং স্থানীয় চান্দনা হাইস্কুল এন্ড কলেজের ১০ম শ্রেণীর ছাত্রী ছিলো।

নিহতের শ্বামী হাসান (২৩) ও তার পরিবারের লোকজন পলাতক রয়েছে। হাসানের পিতা সফির বাড়ি কুমিল্লায়।

এলাকবাসী ও পুলিশ জানায়, রুমির পরিবার পূর্বচান্দনা গ্রামের জনৈক কাসেমের বাড়িতে ভাড়া থাকে। হাসান, তার ভাই রাসেল ও ভাবীর সাথে একই মালিকানাধিন পাশের অপর একটি বাড়িতে ভাড়া থেকে স্থানীয় একটি রিকশা গ্যারেজে কাজ করত। এক পর্যায়ে হাসান ও রুমির মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে এবং প্রায় দেড় মাস আগে উভয় পরিবারের অমতে তারা বিয়ে করে। এ বিয়ে নিয়ে হাসানের সাথে তার ভাই-ভাবীদের মাঝে-মধ্যেই কলহ হতো। সম্প্রতি হাসানকে তার ভাই রাসেল তাদের সংসার থেকে পৃথক করে দেন। হাসান স্ত্রীকে নিয়ে ভাইয়ের ভাড়া বাড়িতে থাকলেও খাওয়া-দাওয়া করত রুমি বাপের বাড়িতে। মঙ্গলবার রাতে তারা খাবার খেয়ে আসলেও বুধবার দুপুর পর্যন্ত খাবার খেতে না গেলে রুমির বাবা খোঁজ করতে ওই বাড়িতে যান। কাউকে না পেয়ে  এবং ঘরের দরজা তলাবদ্ধ দেখে দরজা ফাঁক করে ঘরের খাটের উপর রুমির লাশ পড়ে থাকতে দেখেন। পরে বিষয়টি পুলিশকে জানান।

জয়দেবপুর থানার এসআই মো. আব্দুল জলিল জানান, খবর পেয়ে বুধবার বিকেলে হাসানের শয়ন কক্ষ থেকে রুমির লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহতের লাশ কাঁথা দিয়ে ঢাকা ছিল এবং নাক দিয়ে রক্ত ঝরার চিহ্ন রয়েছে। হাসান ও তার পরিবারের লোকজন পলাতক রয়েছে। লাশ ময়না তদন্তের জন্য শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছেন জয়দেবপুর  পুলিশ কর্মকর্তা।