Pages

Categories

Search

আজ- বুধবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮

গাজীপুরে বিশ্বমানের এবিবি সার্ভিসিং স্টেশন উদ্বোধন

রাজীব সরকার ঃ
দেশে সরকার যখন নিরবিচ্ছন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ করতে বিভিন্ন কর্মসূচী ও উদ্যোগ গ্রহণ করেছে, সেই মুহুর্তে পাওয়ার প্ল্যান্টসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের ক্ষতিগ্রস্থ যন্ত্রপাতি মেরামত তথা সার্ভিসিংয়ের জন্য গাজীপুরের বোর্ডবাজার কলমেশ্বর এলাকায় সুইজারল্যান্ডের এবিবি’র টারবো চার্জার সার্ভিসিং স্টেশন উদ্বোধন করা হয়েছে। শনিবার সকালে এবিবি’র সুইজারল্যান্ডের টারবো সিস্টেম বিভাগের সিনিয়র জেনারেল ম্যানেজার রলফ সুইজার গাজীপুরে ওই স্টেশন উদ্বোধন করেন। এসময় প্রতিষ্ঠানটির বাংলাদেশ কার্ন্ট্রি ম্যানেজার এ্যন্ড ম্যানেজিং ডিরেক্টর রজনীশ ব্যার্ণাজি, টারেবো চার্জিং বিভাগের বিজনেজ ম্যানেজার সৈয়দ শরিফুল ইসলাম, লো-ভোল্টেজ প্রডাক্টের মার্কেট ম্যানেজার সুব্রত কুমার দে, মো. তাজুল হকসহ ঊর্ধ্বতন বিভিন্ন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। পরে তারা স্টেশনটির বিভিন্ন বিভাগ ঘুরে দেখেন।
প্রকল্পের সাফল্য প্রত্যাশা করে রলফ সুইজার এক ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের জানান, ৫০০ কেভিওয়াট থেকে ৮০ মেগাওয়াট ক্যাপাসিটির দুই (টু) অথবা চার (ফোর) স্ট্রোক ডিজেল অথবা গ্যাস ইঞ্জিনের টার্বো চার্জিংয়ের ¶েত্রে বিশ্বের শীর্ষ কোম্পানি এবিবি। একজন গ্রাহক এবিবি থেকে এ ধরনের সেবা গ্রহণের মাধ্যমে ইঞ্জিনের বিশেষ ধরনের পাওয়ার আউটপুট ৩০০ শতাংশ বৃদ্ধি এবং জ্বালানি খরচ ১০ শতাংশ কমিয়ে আনতে পারবেন। পাশাপাশি, কার্বনসহ নানাবিধ গ্যাসদূষণের হাত থেকেও পরিবেশকে সুর¶া দিতে স¶ম এবিবি’র টার্বো চার্জিং সল্যুশন।
বাংলাদেশ কার্ন্ট্রি ম্যানেজার এ্যন্ড ম্যানেজিং ডিরেক্টর রজনীশ ব্যার্ণাজি জানান, বাংলাদেশে বিদ্যুৎ খরচ কমিয়ে দেবে এবিবি’র টার্বোচার্জার। ২০০৭ সালে চট্টগ্রামে প্রথম সার্ভিস স্টেশন স্থাপন করে এবিবি। ক্রমবর্ধমান চাহিদার প্রে¶িতে এবার গাজীপুরে এ ওয়ার্কশপের স্থাপনায় রয়েছে ফ্লোরস্পেস যেখানে পরবর্তীতে একটি ওয়ারহাউস গড়ে তোলার পরিকল্পনাও রয়েছে। এখানে এবিবির বিশ্বখ্যাত বিভিন্ন পণ্যের পাশাপাশি স্থানীয় পর্যায়ে ইন্ড্রাস্ট্রি ও বিল্ডিং সিস্টেমস অ্যাপলিকেশনের নানাবিধ সেবা প্রদানের পরিকল্পনাও রয়েছে। এ ধরনের সেবা নেয়ার মাধ্যমে নিজেদের বিদ্যুৎ খরচ কমিয়ে আনতে স¶ম হবেন গ্রাহকরা। পাশাপাশি, বৃহত্তর জনগোষ্ঠীর কাছে বিদ্যুৎ সেবা পৌঁছে দেবার সুযোগও তৈরি হবে সরকারের জন্য। আগে এসব চাজিংয়ের জন্য ভারত ও সিঙ্গাপুরে যেতে হতো। এতে অধিক অর্থ ও সময় ব্যয় হতো।

বিজনেজ ম্যানেজার সৈয়দ শরিফুল ইসলাম জানান, এ দেশে বেশিরভাগ ক্ষেত্রে বিদ্যুৎ উন্নয়ন কেন্দ্রগুলোতে ইঞ্জিনের সাথে এবিবি’র তৈরি টার্বো চার্জার ব্যবহৃত হচ্ছে। এখানে টারবো চার্জারের সিডিউল মেনটেইনেন্স, ডাইনামিং ব্যালেন্সিং করা হয়। এ প্রতিষ্ঠানে পৃথিবীর মধ্যে অত্যাধুনিক ব্যালেন্সিং মেশিনে সার্ভিসিং করা হয়। এ কাজের জন্য বাংলাদেশে ৫৫জন প্রকৌশলী কাজ করছেন। লোভোল্টেজ প্রডাক্ট, মিডিয়ম ভোল্টেজ প্রকাক্ট, পাওয়ার ট্রান্সফরমার, বৈদ্যুতিক যন্ত্রাংশ, ইলেক্ট্রিক মোটর, সুইস, সকেট, সুইস গিয়ারসহ বিভিন্ন পণ্য ক্রেতাদের চাহিদা অনুযায়ি সরবরাহ করা হয়। ঢাকার গুলশানে এবিবি’র কান্ট্রি অফিস ছাড়াও চট্টগ্রামে একটি সার্ভিস স্টেশন রয়েছে।

মার্কেট ম্যানেজার সুব্রত কুমার দে জানান, এ স্টেশনটি সম্পূর্ণ পরিবেশ বান্ধব। এখানে সোলার প্যানেলের মাধ্যমে উৎপাদিত বিদ্যুৎ ব্যবহার করে চাহিদা মেটানো হয়। এখানে ব্যবহৃত এলইডি লাইট ও মেশিনপত্রগুলো বিদ্যুৎ সাশ্রয়। কারখানার ছাদের বৃষ্টির পানি সঞ্চয় করে ব্যবহার করা হয় এবং আশেপাশের দূষিত পানি বিশেষ ব্যবস্থায় মাটির নীচে প্রবেশ করানো হয়।