Pages

Categories

Search

আজ- রবিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮

গাজীপুরে বিএনপির মানববন্ধনে পুলিশের টিআরসেল নিক্ষেপে লাঠিচার্জ আটক ৯


গাজীপুর দর্পণ রিপোর্ট : কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে গাজীপুর মহানগর ও জেলা বিএনপির উদ্যোগে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে পুলিশের লাঠিচার্জ ও টিআরসেল নিক্ষেপের ঘটনা ঘটনায় কর্মসূচী পন্ড হয়ে হেছে। এঘটনায় জেলা মহিলা দলের দশজন নেতা – কর্মী আহত এবং নয় জন নেতা-কর্মীকে আটক করা হয়েছে।
সোমবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ঘটনাস্থল থেকে গাজীপুর-৪ (কাপাসিয়া) আসনে বিএনপিদলীয় এমপি প্রার্থী প্রয়াত ব্রিগে. আসম হান্নান শাহের ছেলে শাহ রিয়াজুল হান্নান ও গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলর হান্নান মিয়া হান্নুসহ নয়জন আটক করে পুলিশ।


গাজীপুর মহানগর বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক মো. সোহরাব উদ্দিন জানান, বিএনপির কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে আমাদের বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মীদের নিয়ে আমরা বিএনপি কার্যালয়ের সামনে শান্তিপূর্ণভাবে মানববন্ধন করছিলাম। মানবন্ধনের শেষ মুহূর্তে হঠাৎ করে পূর্ব দিক থেকে পুলিশ ফাঁকা গুলি ছুড়ে মানববন্ধনে অংশ নেয়া নেতাকর্মীদের ওপর অতর্কিত লাঠিপেটা শুরু করে। মুহুর্তেই নেতাকর্মীরা দিকবিদিক ছুটাছুটি করতে থাকে। এ সময় নগরবাসী ও পথচারীদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। পরে পুলিশ গাজীপুর-৪ (কাপাসিয়া) আসনের এমপি প্রার্থী প্রয়াত নেতা ব্রিগে. আ স ম হান্নান শাহের ছেলে শাহ রিয়াজুল হান্নান ও সিটি কাউন্সিলর হান্নান মিয়া হান্নুসহ নয়জন নেতাকর্মীকে তুলে নিয়ে যায়।


গাজীপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রাসেল শেখ জানান, ওই ঘটনায় পুলিশ নয়জনকে আটক করেছে। আটককৃত শাহ রিয়াজুল হান্নান ও সিটি কাউন্সিলর হান্নান মিয়া হান্নুসহ বাকিদের কোর্টে চালান করা হবে। জয়দেবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ আমিনুল ইসলাম জানান, রাস্তায় জনচলাচলের বিঘœ ঘটানো ও পুলিশের কাজে বাধা দেয়ার অভিযোগ আনা হয়েছে।