Pages

Categories

Search

আজ- শুক্রবার ১৬ নভেম্বর ২০১৮

গাজীপুরে দুর্গাপ্রতিমা তৈরী করতে ব্যস্ত সময় পার করছেন প্রতিমা শিল্পীরা

সেপ্টেম্বর ২৪, ২০১৭
উৎসব, গাজীপুর, ধর্ম
No Comment

দেবেশ মল্লিক : আর একদিন পর শুরু হবে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের প্রধান ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গা পুজা। গাজীপুরে দুর্গাপ্রতিমা তৈরী করতে ব্যস্ত সময় পার করছেন প্রতিমা শিল্পীরা। তবে গত ১৯শে সেপ্টেম্বর মহালয়ার মধ্যে দিয়ে দেবীর আনুষ্ঠানিক ভাবে আগমনী উৎসব শুরু হয়েছে। এরই মধ্যে শেষ হয়েছে মাটির কাঠামো নির্মানের মুল কাজ। এখন বাকী রং,তুলির ছোয়ায় মূর্তির সৌন্দর্য বর্ধনের কাজ। তবে প্রতিমা শিল্পীরা জানান ,প্রতিমা তৈরীতে যে সমস্ত জিনিসের প্রয়োজন এসবের দাম অনেক বেশী তাই শিল্পীদের প্রতিমা তৈরীতে অনেক বেগ পেতে হচ্ছে।

আগামী ২৬শে সেপ্টেম্বর মহাসষ্ঠীপুজা । মÐপে,মÐপে বেজে উঠবে ঢাক,ডোল আর কাসর ঘন্টা। পাচ দিনের উৎসবের পর ৩০শে সেপ্টেম্বর প্রতিমা বিসর্জনের মধ্যে দিয়ে ঘটবে এর সমাপ্তি। গাজীপুর জেলার পুজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি বাবু সুদেব জানান, এবছর গাজীপুর সদর উপজেলায় ১৭টি, গাজীপুর মহানগরে ৮৮টি, কালিয়াকৈরে ১০৩টি, কাপাসিয়ায় ৫৯টি,শ্রীপুরে ৫১টি ও কালিগঞ্জে ৩৯টি পুজা মন্ডপে এ পুজা অনুষ্ঠিত হবে। তিনি আরও বলেন আমাদের গাজীপুরের জেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসন সার্বিক সহযোগিতায় শারদীয় দুর্গোৎসব সুষ্ঠু ও সুন্দর ভাবে পালন করতে পারব ।
গাজীপুরের জেলা প্রশাসক ড. দেওয়ান মুহাম্মদ হুমায়ুন কবীর জানান, দুর্গাপুজা হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের প্রধান ধর্মীয় উৎসব ও অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি আনন্দ উৎসব। বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ, সে হিসেবে আমরাও চেষ্টা করব গাজীপুরে যে পুজা মÐপগুলি রয়েছে তার বিগ্রহ প্রস্তুতি কালীন ও পূজা চলাকালীন নিরাপত্তা নিশ্চিত করা যায় সে উপলক্ষে আইনশৃঙ্খলা কমিটি করেছি। প্রত্যেকটি উপজেলায় অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্টেট বা উপজেলা পর্যায়ে যেসব কর্মকর্তারা রয়েছে তাদের প্রত্যেককে একএকটি উপজেলার দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। এছাড়াও র‌্যাব, পুলিশ, আনছার, গ্রামপুলিশ সহ জনপ্রতিনিধিদের সাথে নিয়ে সুন্দর ভাবে যেন অনুষ্ঠিত হয়। তিনি আরও বলেন গাজীপুরে শারদীয় দুর্গাপূজা সুষ্ঠু, সুন্দর আনন্দ ঘনভাবে যেন অনুষ্ঠিত হয়।

প্রতিটা পুজা মন্ডপে নিছিদ্র নিরাপত্তা দিতে ইতোমধ্যে শান্তিশৃঙ্খলা কমিটি গঠন করা হয়েছে। নেওয়া হয়েছে তিন স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা। র‌্যাব, পুলিশ ও গোয়েন্দা বাহিনী মাঠে কাজ করবে।এছাড়াও যেকোন অপ্রিতিকর ঘটনা এড়াতে পুলিশের পাশাপাশি আনছার ওগ্রাম পুলিশ মোতায়েন থাকবে বলে জানান, গাজীপুরের পুলিশ সুপার হারুন অর রশিদ।