Pages

Categories

Search

আজ- শুক্রবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮

গাজীপুরে চিহ্নিত সন্ত্রাসীদের ছুরিকাঘাতে আইনজীবী খুন

গাজীপুর দর্পণ রিপোর্ট: biplop20151107153442

গাজীপুরে খন্দকার এনামুল হক বিপ্লব (৪২) নামে এক শিক্ষানবিশ আইনজীবীকে ছুরিকাঘাতে খুন করেছে সন্ত্রাসীরা।
শনিবার রাত ৭টার দিকে রাজধানী কুর্মিটোলা হাসপাতালে নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

নিহত বিপ্লব গাজীপুর বারের সাবেক সভাপতি অ্যাড. শহিদুজ্জামানের সঙ্গে জুনিয়র আইনজীবী হিসেবে কাজ করতেন।

শনিবার সন্ধ্যায় উত্তর ছায়াবিথী এলাকার হোনেয়ারা স্টোরের সামনে এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী মাদকসেবী রাব্বি ও রবিন দুই অস্ত্রধারী উপর্যপুরি আঘাত করে। নিহত বিপ্লব সাবেক পুলিশ অফিসার মৃত: খন্দকার সামসুদ্দিনের পুত্র।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, মাগরিবের নামাযের আগমুহুর্তে খন্দকার এনামুল হক বিপ্লব শহরের উত্তর ছায়াবিথীর এফ- ১২৬ নং বাসায় যাওয়ার পথে সন্ত্রাসীদের এলোপাথারী ছুরিকাঘাতে চিৎকার দিয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। রক্তাক্ত অবস্থায় শহীদ তাজউদ্দীন আহমেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক আব্দুল্লাহ আল মামুন তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন।

এরপর রাত ৭টার দিকে উত্তরার আধুনিক হাসপাতালে নেয়া হলে তার অবস্থার আরো অবনতি ঘটে। সেখান থেকে তাকে ঢাকার কুর্মিটোলা হাসপাতালে নেয়ার পথে মৃত্যু হয়।

তার শরীরে ১১টি আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

নিহত বিপ্লব এর প্রতিবেশী আবুল কাশেম গাজীপুর দর্পণকে জানান, চিৎকার শুনে দৌড়ে গিয়ে শহীদ তাজউদ্দীন আহমেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিলে জরুরী বিভাগের চিকিৎসক ঢাকায় পাঠায়। এঘটনার বিষয়ে জানতে চাইলে বিপ্লবের বড় ভাই হাইকোর্টের সাবেক সহকারী এর্টনী জেনারেল এ্যাড. খন্দকার আমিনুল হক টুটুল বলেন, ৭দিন আগে বাবা মারা গেছেন আজ ভাইকে মেরে ফেলেছে – মনের অবস্থা বুঁঝতেই পাড়ছেন। নিহত খন্দকার এনামূল হক বিপ্লবের দাদার বাড়ি টাঙ্গাইল জেলায়।
ঘাতক রাব্বি ও রবিন দুই ভাই। তাদের বাবা মাসুদুর রহমান গাজীপুর জজ কোর্টের সেরেস্তাদার। তারা সকলেই গাজীপুর শহরের ছায়াবিথী এলাকার বাসিন্দা।

বিপ্লবের মা রেহানা আক্তার জানান, গাজীপুর জজ কোর্টের সেরেস্তাদার মাসুদুর রহমানের দুই ছেলে সন্ত্রাসী রাব্বি ও রবিন তার ছেলে বিপ্লবকে বিনা অপরাধে খুন করেছে। তিনি হত্যাকারীদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবি করেন।

জয়দেবপুর থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) আব্দুল হামিদ জানান, পূর্ব শত্রুতার জেরে এ ঘটনাটি ঘটেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। হামলাকারীদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।