Pages

Categories

Search

আজ- সোমবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮

গাজীপুরবাসী নৌকার বিজয় উপহার দিতে প্রস্তুত —আজমত উল্লাহ খান


গাজীপুর দর্পণ রিপোর্ট : ‘নৌকার পক্ষে গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে। নির্বাচনী তফসিল ঘোষণার পর থেকেই আওয়ামী লীগের সকল নেতৃবৃন্দ নৌকার পক্ষে ঐক্যবদ্ধ। আমাদের প্রার্থী ৫৭ ওয়ার্ডে বার বার ভোটারের দ্বারে দ্বারে গিয়েছেন। আমাদের কর্মীরা কাজ অব্যাহত রেখেছেন। আগামী ২৬ জুন নির্বাচনে নৌকা মার্কায় জাহাঙ্গীর আলমের বিজয় সুনিশ্চিত করে আমরা ঘরে ফিরবো। গাজীপুর বাসী জননেত্রী শেখ হাসিনাকে নৌকার বিজয় উপহার দিতে প্রস্তুত।’ গতকাল শনিবার বিকালে নগরীর ৪৬ নম্বর নোওয়াগাও স্থানীয় সংসদ সদস্য জাহিদ আহসান রাসেলের বাসভবনে সংবাদ ব্রিফিংএ আওয়ামী লীগ নির্বাচনী পরিচালনা কমিটি এক নম্বর এজেন্ট ও মহানগর সভাপতি মোঃ আজমত উল্লাহ খান এসব কথা বলেন।
মেয়র প্রার্থী সকালে নিজ বাসভবনে ওলামা লীগের নেতৃবৃন্দের সাথে মতবিনিময় করেন। পরে বেলা ১১ টায় খরতৈলে গণসংযোগ ও পথসভার মাধ্যমে দিনের কর্মসুচি শুরু করেন। সাতাইশ স্কুলের সামনে, সাতাইশ চৌরাস্তা, ৫২ নম্বর মুদাফা, ৫৩ নম্বরে দেওড়া ফকির মার্কেট, ৫৫ নম্বর মিলগেট এলাকায় পথসভায় ভোট প্রার্থনা করেন। ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র প্রার্থী মোঃ আতিকুল ইসলাম পথসভায় বক্তব্য রাখেন এবং গণসংযোগে করেন।
‘আমরা একটি আধুনিক শহর করতে চাই। টঙ্গী গাজীপুরবাসীর কাছে আমি আবদার করছি। আমাদেরকে একবার নৌকায় ভোট দেন। আমরা সকলেই ঐক্যদ্ধ আছি। আমরা সকলে মিলে একটি ক্লিন এবং গ্রীন সিটি উপহার দিতে চাই। একটি বাসযোগ্য শহর করতে চাই। আপনাদের একজন কর্মচারী হিসাবে আমাকে এবং নৌকাকে ভোট দেন।’ আওয়ামী লীগ মেয়র প্রার্থী মোঃ জাহাঙ্গীর আলম গতকাল শনিবার বেলা ১১টায় মহানগরীর ৫১ নম্বর খরতৈল স্কুলের সামনে পথসভায় এসব কথা বলেন।
সকাল থেকে মুষলধারে বৃষ্টি উপেক্ষা করে নেতাকর্মীরা মিছিল সহকারে পথসভায় যোগ দেন। মেয়র প্রার্থীকে এক নজর দেখার জন্য সব শ্রেনীর মানুষ রাস্তায় নেমে আসেন। প্রতিটি পথসভা শেষ হতেই নেতাকর্মীরা জাহাঙ্গীরের বহরে শামিল হতে থাকেন। দুপুরে সবশেষ মিলগেট পথসভায় হাজার হাজার মানুষ জড়ো হয়। চারিদিক নৌকার জয়ধ্বনীতে মুখরিত হয়ে উঠে। মিলগেট পথসভায় জাহাঙ্গীর বলেন, কোন কাজই ছোট না। মিলগেটের ব্যবসায়ীদের মত তিনিও এই কর্ম করে জীবিকা নির্বাহ করেন। বংশ পরিচয়ে না, কর্মই হচ্ছে মানুষের পরিচয়। তিনি নিজেও একজন কর্মচারী। সকল শ্রেনীর মানুষকে সমানভাবে সম্মাণ দেখাতে চান। তিনি সকলকে সাথে নিয়ে একটি বাসযোগ্য শহর গড়তে চান। আগামী ২৬ জুন নির্বাচনে নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে তাকে জয়যুক্ত করার আহ্বান জানান।
এসময় অন্যান্যের মধ্যে মোঃ তোফাজ্জল হোসেন, মোঃ জালাল উদ্দিন মাষ্টার, কাজী ইলিয়াস আহমেদ, মোস্তফা হুমায়ুন হিমু, মোঃ সাইফুল ইসলাম, আব্দুল কাইয়ুম, নীলিমা আক্তার লিলি, মোঃ নুরুল ইসলাম নুরু, মোঃ আলী মিয়া, মোঃ সোলেমান হায়দার, মোঃ সেলিম মিয়া, এম এম হেলাল উদ্দিন, মোস্তাফিজুর রহমান টিটু, আব্দুল আলীম, মোঃ কামাল হোসেন, মাসুম বিল্লাহ বিপ্লব, কাজী মঞ্জুর, রেজাউল করিম প্রমুখ নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
অপরদিকে বেলা ৩ টায় টঙ্গী নওয়াগাও এলাকায় সংসদ সদস্য মোঃ জাহিদ আহসান রাসেলের বাসভবনে একটি পারিবারিক অনুষ্ঠান উপলক্ষে মহানগর নেতৃবৃন্দ ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক এবং সংসদ সদস্য জাহিদ আহসান রাসেল যোগ দেন। সেখানে মহানগর নেতৃবৃন্দ বৈঠক করেন। বৈঠক শেষে নির্বাচনের সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে গণমাধ্যমকর্মীদের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির এক নম্বর এজেন্ট ও মহানগর সভাপতি এ্যাড. মোঃ আজমত উল্লা খান ব্রিফিং করেন। জাহাঙ্গীর বলেন, আজমত ভাই আমাদের অভিভাবক। তার কাছ থেকেই রাজনীতি শিখেছি। সিটি নির্বাচনে তার পরামর্শ এবং নির্দেশেই সকল নির্বাচনী কার্যক্রম পরিচালনা হচ্ছে। আজকে ঐক্যবদ্ধ আওয়ামী লীগের কর্মেও মাধ্যমে গাজীপুরে নৌকার গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে। আপনাদের মিডিয়ার মাধ্যমে আগামী ২৬ জুন নির্বাচনে নৌকা মার্কায় সকলের দোয়া, সহযোগীতা ও ভোট চাই।’ ব্রিফিংএ অন্যান্যের মধ্যে আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় নেতা এবিএম রিয়াজুল কবীর কাওছার, সাবেক এমপি কাজী মোজাম্মেল হক, ঢাকা উত্তর সিটির মেয়র প্রার্থী মোঃ আতিকুল ইসলাম, জেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সদস্য সচিব মোঃ ইকবাল হোসেন সবুজ, মহানগর আওয়ামী লীগের সাং সম্পাদক কাজী ইলিয়াস আহমেদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।