Pages

Categories

Search

আজ- মঙ্গলবার ১৩ নভেম্বর ২০১৮

কেমন আছেন সিটমহল বাসি?

Capture
মোঃ শহিদুল ইসলাম, দাশিয়ার ছড়া সিটমহল (কুড়িগ্রাম) থেকে ফিরে: অনেক ঘাত-প্রতিঘাত পেরিয়ে দীর্ঘ ৬৮ বছর পরে স্বাধীনতা পাওয়া সিটমহল বাসি কেমন আছেন কথাটি জানতে চেয়েছিলাম কুড়িগ্রাম জেলার ফুলবাড়ী উপজেলা সংলগ্ন দাশিয়ার ছড়া বাংলাদেশ-ভারত ছিটমহল বিনিময় সমন্ময় কমিটির সাধারণ সম্পাদক মোঃ গোলাম মোস্তফা খানের কাছে । তিনি আবেগ ভরা কন্ঠে জানান, আমরা দীর্ঘদিন ধরে অবহেলিত অবস্থায় ছিলাম, ছিলনা কোন স্বাধীনতা নিজেরা লেখা পড়া শিখেছি অন্যের পৃত্যি পরিচয়ে । আমাদের সন্তানদের লেখা পড়াও শিখতে হয়েছে একই ভাবে । কতদিন ধরে আন্দোলন করছেন এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি গাজীপুর দর্পণকে জানান, প্রথম আন্দোলন শুরু করেছিলেন ভারতের প্রায়ত এম এল এ দীপক সেন গুপ্ত এর পরে তার ছেলে দ্বিপ্তিমন সেন গুপ্ত আন্দোলনে নেতৃত্ব দেন । পরবর্তিতে ১৯৯৪ ইং সনে তার নেতৃত্বে আরো বড় আন্দোলন চলতে থাকে । বর্তমান প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে ভারতের ছিটমহল বিনিময় চুক্তি হওয়ার পরে গত ২০১৫ সালে পহেলা আগষ্ট তারা পূর্ণ স্বাধীনতা লাভ করেন । দাশিয়ার ছড়া ছিটমহলের সরকারী হিসাবে বতৃমান জন সংখা ৭ হাজার ৭ শ, বে-সরকারী হিসাবে ১০ হাজার ২ শত ৩৭ জন । জমির পরিমানঃ ১৯৪৩ একর রাস্তা সাড়ে ৬শ, কিলোমিটার, প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার, ঘোষনা অনুযায়ী দাশিয়ার ছড়া ছিটমহলে বর্তমান স্কুল এন্ড কলেজ ১টি, বালিকা বিদ্যালয়২টি মাধ্যমিক বিদ্যায় ২টি, প্রতিবন্দী বিদ্যালয় ১টি, শিশু নিকেতন স্কুল ১টি, প্রাক-প্রাথমিক স্কুল ১৫ টি, কমিউনিটি ক্লিনিক ৩টি, শতভাগ বিদুত্যায়ন ,এছাড়াও আইন শৃংখলা স্বাভাবিক রাখার জন্য একটি পুলিশ ফাঁড়ি করা হয়েছে। দাশিয়ার ছড়া ছিটমহলের স্থায়ী বাসিন্দা আব্দুর রাজ্জাক ও পার্শ্ববর্তি ইউপি চেয়ারম্যান মনিরুজ্জামান মানিক দাবী করেন, ছিটমহল বাসিরা দীর্ঘদিন যাবত অবহেলিত ছিল, সরকার তাদের সুযোগ-সুবিদা দিয়েছেন,তাদের ভোটার তালিকা চলছে তারা ভোট দিতে পারবে, তবে ছিটমহল বাসির প্রানের দাবী শেখ হাসিনার ঘোষনা দেওয়া প্রতিষ্ঠান গুলোতে ছিটমহল বাসিকে নিয়োগ দিলে তাদের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা হবে বলে তারা জোর দাবী জানান।