Pages

Categories

Search

আজ- শুক্রবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮

কালিয়াকৈরে তিতাসের সাড়ে তিনশ’ অবৈধ সংযোগ বিচ্ছিন্ন

(ফাইল ছবি)

(ফাইল ছবি)

নিজস্ব প্রতিবেদক:

গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার গোয়ালবাথান এলাকায় মঙ্গলবার তিতাস গ্যাসের সাড়ে তিনশ’র মতো অবৈধ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করেছে ভ্রাম্যমান আদালত। এসময় ঝুঁকি এড়াতে ঢাকার উত্তরের গাজীপুরসহ কয়েকটি জেলার গ্যাস সঞ্চালন বন্ধ রাখা হয়। ফলে বিভিন্ন এলাকায় দীর্ঘ সময় গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকে।

মঙ্গলবার দুপুর ১টার দিকে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের উপজেলার খাড়াজোড়া এলাকার মূল সঞ্চালন পাইপ থেকে অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয় এবং প্রায় এক কিলোমিটার এলাকার মাটি খুড়ে ২ হাজার ফুট পাইপ উঠিয়ে ফেলে জব্দ করা হয়।

ভ্রাম্যামান আদালত সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরে গোয়ালবাথান এলাকায় কতিপয় ব্যক্তি তিতাস গ্যাসের সরবরাহ লাইন (মূল সঞ্চালন পাইপ লাইন) থেকে অবৈধভাবে উপজেলার গোয়ালবাথান, বরিয়াবহ ও রসুলপুরসহ বিভিন্ন এলাকায় সংযোগ দিয়ে পাইপ লাইন তথা রাইজার স্থাপন করে গ্যাস ব্যবহার করছিল। এতে কালিয়াকৈর উপজেলাসহ বিভিন্ন স্থানে বৈধ গ্রাহকদের মধ্যে গ্যাস সংকট দেখা দেয়। খবর পেয়ে মঙ্গলবার দুপুর থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত ওই এলাকায় ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে ওই সংযোগ (রাইজার) বিচ্ছিন্ন ও পাইপ উত্তোলন করা হয়। ভ্রাম্যমান আদালতের খবর পেয়ে সংযোগকারীরা পালিয়ে যাওয়ায় কাউকে আটক বা জরিমানা করা সম্ভব হয়নি।

কালিয়াকৈর উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) মো. সিরাজুল ইসলামের নেতৃত্বে ওই ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালিত হয়। এসময় তিতাস গ্যাসের চন্দ্রা বিপনন কার্যালয়ের উপ-ব্যবস্থাপক সফিউদ্দিন আহমেদ, আতিকুল হক, সহকারি প্রকৌশলী মো. আখেরুজ্জামান, বদরুজ্জামানসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন এন্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানী লিমিটেড চন্দ্রা জোনাল অফিসের ম্যানেজার মো. সুরুজ আলম জানান, অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন কার্যক্রম শুরু হয়েছে। উপজেলার যে সব এলাকায় অবৈধ গ্যাস সংযোগ রয়েছে পর্যায়ক্রমে তা বিচ্ছিন্ন করা হবে এবং ভ্রাম্যমান আদালত চলমান থাকবে।

এদিকে স্থানীয়রা জানায়, অবৈধ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করনের জন্য মঙ্গলবার সকাল ১০টায় ভ্রাম্যমান আদালত শুরু হওযার কথা থাকলেও নানা নাটকীয়তার পর তা শুরু হয় দুপুর ১টায়। বিষয়টি নিয়ে উপস্থিত লোকজনদের কানাঘুষা করতে দেখা গেছে।