Pages

Categories

Search

আজ- শনিবার ১৭ নভেম্বর ২০১৮

কামাল-বি চৌধুরীদের গান জাতি আর শুনবে না — ভালুকায় এড.জর্জ

অক্টোবর ১৩, ২০১৮
ময়মনসিংহ, রাজনীতি
No Comment


মোঃ রফিকুল ইসলাম রফিক, বিশেষ প্রতিনিধি: বাংলাদেশ কৃষকলীগের সিনিয়র সহসভাপতি ও বিশিষ্ঠ আইনজীবি এড. আশরাফুল হক জর্জ বলেছেন,ড. কামাল হোসেন ও বি চৌধুরীদের রাজনৈতিক চরিত্র জাতির কাছে প্রশ্নবিদ্ধ তাই তাদের ঘুম পাড়ানি গান জাতি এখন আর শুনবেনা।

তাদের কথায় জাগার মতো কিছু নেই। জাতি জেগে আছে শেখ হাসিনার ডাকে। এড.জর্জ বলেন শেখ হাসিনা দেশকে অনেক দুর এগিয়ে নিয়ে গেছেন। দেশের সারি পিছনে থাকলেও নেতৃত্বের কারনে শেখ হাসিনার স্থান এখন বিশ্বের কাছে সামনের সারিতে।

তিনি সরকারের উন্নয়ন চিত্র জাতির সামনে তুলে ধরতে গনমাধ্যমের সহযোগীতা কামনা করেন। কৃষকলীগ নেতা এড.জর্জ শনিবার দুপুরে ভালুকায় সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ড তুলে ধরার লক্ষ্যে স্থানীয় সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় কালে এ সব কথা বলেন।

এড. জর্জ বলেন,ড.কামাল হোসেন এক সময় আমাদের নেতা ছিলেন আর বি চৌধুরীও অনেক সিনিয়র ব্যাক্তি। বিএনপি তাকে রাষ্ট্রপতি করেছিল আবার বাদও দিয়েছিল। প্রতিবাদ করতে গিয়ে রেল লাইনে লাঞ্চিত হন। এখন তারা জোট করতে চান তাদের কথা দেশ বাসী শুনবে না,তাদের ঘুম পাড়ানি গান শুনে জাতি আর ঘুমাবে না কারন শেখ হাসিনার নেতৃত্বে জাতি এখন জেগে আছে।

শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ যেভাবে এগিয়ে যাচ্ছে তাকে কেউ দমাতে পারবে না। দেশের মানুষের গড় আয়ু বৃদ্ধি পেয়েছে শিক্ষার হার বেড়েছে। মানুষের মাথা পিছু আয় বেড়েছে তাই আবারো নৌকায় ভোট দিতে জনগনের প্রতি আহŸান জানিয়ে তিনি বলেন সরকারের এ অর্জনকে ধরে রাখতে হবে। সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ড বিচ্ছিন্ন ভাবে নয় ঐক্যবদ্ধ ভাবে প্রচারের জন্য আহŸান জানান।

উপজেলা আ’লীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক ও জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সহকারী কমান্ডার অধ্যাপক মতিউর রহমান খানের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন ভালুকা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আ’লীগের সাধারন সম্পাদক আলহাজ্ব মোঃ গোলাম মোস্তফা,সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান লোকমান হেকিম সরকার,

সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার জহিরুল আলম ঢালী,উথুরা ইউনিয়ন আ’লীগ সভাপতি শামছুল হক চৌধুরী,মুক্তিযোদ্ধা মোঃ আব্দুল কুদ্দুস খান,আবুল কালাম আজাদ সহ আ’লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মী ও মুক্তিযোদ্ধাগন।

এ সময় বিভিন্ন প্রিন্ট,ইলেকট্রিনিক ও অনলাইন মিডিয়ার সাংবাদিকগন উপস্থিত ছিলেন। পরে সরকারের উন্নয়ন চিত্র প্রচারের লক্ষ্যে বাসষ্ট্যান্ড এলাকায় লিফলেট বিতরন করা হয়।