Pages

Categories

Search

আজ- বুধবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮

আত্রাইয়ে চোরাইমালের টাকা ভাগ-বাটোয়ারা নিয়ে খুন গ্রেফতার ৩

ফেব্রুয়ারি ২৯, ২০১৬
অপরাধ, আইন- আদালত, চুরি/ছিনতাই/দস্যূতা, নওগাঁ
No Comment

Naogaon_720123863

মোঃ ওহেদুল ইসলাম মিলন, আত্রাই (নওগাঁ) সংবাদদাতা : চোরাই মালের টাকার ভাগ-বাটোয়ারা কে কেন্দ্র করে খুন হয় চোরের দলনেতা জহুরুল (৩৫)। শুক্রবার রাতে নওগাঁর আত্রাই উপজেলার আত্রাই-কালীগঞ্জ রাস্তার বাঁকা নামকস্থানে রাতের আধারে পিটিয়ে ও শ্বাসরোধ করে হত্যার পর ফেলে রেখে পালিয়ে যায় সঙ্গীরা। এঘটনার মাত্র ২৪ ঘন্টার মধ্যেই হত্যাকান্ডের মোটিভ উদ্ধার ও মুলহোতা সহ ৩জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
আত্রাই থানার ওসি (তদন্ত) ছামছুর রহমান জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রবিবার সুন্ধ্যায় সান্তাহার রেল ষ্টেশন এলাকা থেকে আক্কেলপুর উপজেলার মুনজা গ্রামের আয়েন আলীর ছেলে নয়নতারা (২০), আদমদীঘি উপজেলার উথরাইল গ্রামের মাসুদ আলীর ছেলে সোহাগ (১৮) এবং রাণীনগর উপজেলার দূর্গাপুর গ্রামের ছামছুল হকের ছেলে আসাদুল (২২) কে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারের পর তারা প্রাথমিকভাবে পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে জানান, খুনের সিকার জহুরুলের নেতৃত্বে তারা কয়েকজন মিলে বেশকিছু দিন ধরে সান্তাহার এলাকায় থাকতো এবং বিভিন্ন এলাকায় চুরি-ছিন্তাই করতো। এরই এক পর্যায়ে গত ২৪ ফেব্রুয়ারী জহুরুল দু’টি ভ্যান চুরি করে সান্তাহার পৌছে দেয়ার জন্য নয়নতারা ও সোহাগের সাথে ৬ হাজার টাকা চুক্তি করে। চুক্তি মোতাবেক ভ্যান চুরি করে সান্তাহার এলাকায় পৌছলে পরিত্যাক্ত অবস্থায় পুলিশ ভ্যান উদ্ধার করে নিয়ে যায় । এরপর ২৬ ফেব্রুয়ারী বিকেলে আত্রাই এলাকায় চুরির উদ্দ্যেশ্যে আসলে রাতে আত্রাই –কালীগঞ্জ রাস্তার বাঁকা নামকস্থানে পৌছলে নয়নতারা ও সোগাহ জহুরুলের কাছে চুরির চুক্তিকৃত ৬ হাজার টাকা দাবি করে। এসময় জহুরুল তাদেরকে ৫ হাজার টাকা দিতে চাইলে বাকবিতন্ডা শুরু হয় । এক পর্যায়ে নয়নতারা ও সোহাগ জহুরুলকে মারপিট করে গলায় গামছার ফাঁস দিয়ে হত্যা করে লাশ ফেলে রেখে চলে যায়। পরের দিন সকালে স্থাণীয়রা অজ্ঞাত লাশ দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দিলে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। এর পর সুন্ধ্যানাগাদ লাশের পরিচয় মেলে। এঘটনায় জহুরুলের পিতা সাইফুল ইসলাম বাদী হয়ে অজ্ঞাতদের আসামী করে মামলা দায়ের করেন। মামলা দায়েরের মাত্র ২৪ ঘন্টার মধ্যে হত্যাকান্ডের মোটিভ উদ্ধারসহ খুনিদের গ্রেফতার করতে স্বক্ষম হন থানাপুলিশ। খুনের সিকার জুরুল রাণীনগর উপজেলার কাশিনগর গ্রামের সাইফুল ইসলামের ছেলে।
সোমবার বিকেলে এরিপোট লেখার সময় ওসি তদন্ত) ছামছুর রহমানের  সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান,আসামীদেও আদালতে সোর্পদ করা হয়েছে । তারা আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি প্রদান করছেন ।