Pages

Categories

Search

আজ- মঙ্গলবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮

আজ থেকে শুধুই এমআরপি, নিষিদ্ধ হয়ে গেল হাতে লেখা পাসপোর্ট

নভেম্বর ২৫, ২০১৫
জাতীয়
No Comment

bd-passsportমেশিন রিডেবল পাসপোর্ট (এমআরপি) ছাড়া আজ বুধবার থেকে কেউ বিদেশ যেতে পারবেন না। হাতে লেখা পাসপোর্ট সারা বিশ্বেই আজ থেকে নিষিদ্ধ। এ অবস্থায় সবাইকে এমআরপি দিতে দেশে-বিদেশে ১২৮টি পাসপোর্ট অফিস খুলেছে বাংলাদেশ সরকার। এখন পর্যন্ত প্রায় সাড়ে ১১ লাখ প্রবাসী এমআরপির বাইরে রয়েছেন। তবে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের হিসাবে সংখ্যাটি দুই লাখের মতো। চালু হওয়ার পর গত পাঁচ বছরে এক কোটি ২৫ লাখ বাংলাদেশি মেশিন রিডেবল পাসপোর্ট নিয়েছেন। তাঁদের মধ্যে ২৩ লাখ প্রবাসী।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, আন্তর্জাতিক বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ কয়েক বছর আগে সিদ্ধান্ত দেয় যে ২০১৫ সালের ২৪ নভেম্বরের পর হাতে লেখা পাসপোর্ট চলবে না। গতকাল ছিল সেই মেয়াদের শেষ দিন। ফলে যাঁদের এমআরপি নেই, তাঁরা দেশের বাইরে যেতে পারবেন না। তবে তাৎক্ষণিকভাবে চাইলে দূতাবাস বা মিশন থেকে ‘ট্রাভেল পারমিট’ নিয়ে প্রবাসীরা দেশে ফিরতে পারবেন। আন্তর্জাতিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ হাতে লেখা পাসপোর্টে নিষেধাজ্ঞা দিলেও ট্রেন বা বাসে স্থলবন্দর পেরোনোর ক্ষেত্রেও একই নিয়ম প্রযোজ্য।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (সিকিউরিটি অ্যান্ড ইমিগ্রেশন উইং) মোস্তফা কামাল উদ্দিন গণমাধ্যকে বলেন, ‘পাসপোর্ট একটি চলমান প্রক্রিয়া। যাঁরা করেননি, তাঁরা ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে এমআরপি করে নিতে পারবেন।’

সারা দেশে মোট ৬৮টি পাসপোর্ট অফিস রয়েছে। বিদেশে আছে ৬০টি। সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, ১১ লক্ষাধিক প্রবাসীর এমআরপি না করানোর নেপথ্যে পাঁচটি কারণ জানতে পেরেছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। প্রথমত, এজেন্সিগুলো নানা নাম বসিয়ে ভিসা নিয়ে আসে। যাঁরা সেই ভিসায় বাইরে যান, তাঁদের ওই ছদ্ম নামেই পাসপোর্ট করতে হয়। এমআরপি করতে গেলে এ ক্ষেত্রে ধরা পড়ার ভয় আছে। দ্বিতীয়ত, যাঁরা বয়স কম দেখিয়ে গেছেন, তাঁরাও মেশিন রিডেবল পাসপোর্ট নেন না। তৃতীয়ত, মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোতে নিয়োগকারীর কাছে পাসপোর্ট জমা থাকে। চতুর্থত, যাঁদের ভিসার মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে, তাঁরা পাসপোর্ট ফেলে দেন। পঞ্চম কারণ, যাঁদের পাসপোর্টের মেয়াদ ২০১৮ পর্যন্ত রয়েছে, তাঁরা দেশে ফিরে অথবা মেয়াদ শেষে এমআরপি নেওয়ার চিন্তা করছেন।

বিদেশে যাঁরা অবৈধভাবে রয়েছেন তাঁদের এখন কী হবে এ প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মোস্তফা কামাল উদ্দিন বলেন, ‘তাঁরা ট্রাভেল পারমিট নিয়ে আসতে পারবেন। দূতাবাসগুলো তাৎক্ষণিকভাবে ট্রাভেল পারমিট ইস্যু করে দেবে।’

এমআরপি না করা প্রবাসীর সংখ্যা নিয়ে বিভ্রান্তি রয়েছে। গত বৃহস্পতিবার সংসদে পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী জানিয়েছেন, বিদেশে বসবাসরত ১১ লাখ ৩২ হাজার ৩৩৭ জনকে এখনো এমআরপি দিতে পারেনি সরকার। তবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান জানিয়েছেন, এ সংখ্যা দুই লাখের বেশি নয়।