Pages

Categories

Search

আজ- সোমবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮

অবশেষে ইউএনও’র হস্তক্ষেপে মহাদেবপুর আবাসনে ফিরে পেল পানির কল

জুলাই ৭, ২০১৭
উন্নয়ন সংবাদ, নওগাঁ
No Comment

মো. আককাস আলী, (মহাদেবপুর) নওগাঁ : নওগাঁর মহাদেবপুর উপজেলার খাজুর ইউনিয়নের রনাইল গ্রামে আবাসন ২ এর ৩০ পরিবার দীর্ঘ প্রতিক্ষার পর অবশেষে নবাগত ইউএনও মো. মোবারক হোসেনের হস্তক্ষেপে ফিরে পেল সুপ্রিয় পানির কল। ওই আবাসন প্রকল্পের সভাপতি গোলজার হোসেন জানান ২০১৪ এর শেষে রনাইল গ্রামে আবাসন ২ এর ৩০ পরিবারের জন ৬টি নূলকুপ স্থাপন করা হয়। প্রথম থেকেইএই নুলগুলো অকেজু ছিল তবে একটি নূলকুপ থেকে পানি পান করত ৩০ পরিবার। শেষে ওই নূলকুপও অকেজু হয়ে পড়লে এই ৩০ পরিবার পাশের ৫শ মিটার দুর থেকে সুপ্রিয় পানি বহন করে খেত এবং পাশের পুকুরের ব্যবহার করত। তৎসময়ে গোলজার হোসেন ইউএনও, উপজেলা চেয়ারম্যান ও খাজুর ইউনিয়ন পরিষদ বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করলেও পায়নি সুপ্রিয় পানির ব্যবস্থা। গোলজার হোসেন জানান, ইউনিয়ন পরিষদ ও উপজেলা চেয়ারম্যানের অফিসে ধর্না দিতে দিতে তাদের পায়ের স্যান্ডেল খয়ে গেছে তারপরও তাদের সমস্যার সমাধান হয়নি। এদিকে ওই আবাসনের বিধবা আয়েশা বেওয়া (৬৫),আনোয়ারা বেওয়া (৬২). গোলেজান বেওয়া(৭০), ফজিলাতুন (৩৫), হালিমা(৬০) জানান, সুপ্রিয় পানির অভাবে পুকুরের পান করায় বাচ্ছাদের অসুখ-বিসুখ লেগেই থাকে। তারা আরও জানান এই আবাসন ২ প্রকল্পে আসার পর থেকেই কোন অনুদান বা বিধাব ভাতা পায়নি এবং এখানকার রাস্তা ঘাটের কোন উন্নয়ন হয়নি। এব্যাপারে খাজুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বেলাল উদ্দীনের সাথে কথা হলে তিনি জানান, ওই প্রকল্পের আবাসন ২ এ পানির স্তর নিচে থাকায় নুলকুপ থেকে পানি উঠে না তাই নুলকুপগুলো অকেজু হয়ে গেছে। নতুন করে নুলকুপের ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। ইউএনও মো. মোবারক হোসেনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি তাৎক্ষনিক পানি কলের ব্যবস্থা নেয়ার জন্য চেয়ারম্যান বরাবর জানান এবং শনিবার নূলকপ বসানো হবে বলেও চেয়ারম্যান আশ্বাস্ত করেন। অবশেষে ৭জুলাই ওই আবাসন ২ প্রকল্পে সুপ্রিয় পানিয় কল বাসানোর মালামাল পৌঁছে যায়।